সাকিবও চেয়েছিলেন বার্সা ছাড়ুক মেসি

8

লিওনেল মেসির বার্সেলোনা ছাড়তে চাওয়ার খবরে কয়েক মাস আগে গোটা ফুটবল দুনিয়ায় লেগে গিয়েছিল ধুন্ধুমার। শেষ পর্যন্ত অবশ্য জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে রিলিজ ক্লজের গ্যাঁড়াকলে পড়ে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড থেকে গেছেন ন্যু ক্যাম্পেই।

কিন্তু বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান সেসময় চেয়েছিলেন, তার প্রিয় ফুটবলার মেসি যেন বার্সা ছেড়ে পাড়ি জমান নতুন কোনো ঠিকানায়!

আইসিসির দেওয়া এক বছরের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষে বুধবার রাতে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে হাজির হন সাকিব। সেখানে গণমাধ্যমকর্মী ও ভক্ত-সমর্থকদের করা নানা প্রশ্ন থেকে বাছাইকৃতগুলোর উত্তর দেন তিনি।

এক ভক্ত সাকিবের কাছে প্রশ্ন রাখেন, ‘আপনার খুব কঠিন সময়ে ভক্তরা ছিল আপনার পাশেই। মজার ব্যাপার হলো ,আপনিও কিন্তু মেসির বেশ বড় ভক্ত। কদিন আগেই বার্সেলোনা ছেড়ে দেওয়ার ইচ্ছা পোষণ করেছিলেন মেসি। সেসময়টা বেশ কঠিন গিয়েছে তার। প্রিয় খেলোয়াড় ও ক্লাব যখন এরকম পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছিল, ভক্ত সাকিবের ভাবনা কী ছিল?’

জবাবে সাকিব জানান, তিনি মেসিকে ইংলিশ পরাশক্তি ম্যানচেস্টার সিটি অথবা ফরাসি লিগ ওয়ানের শিরোপাধারী প্যারিস সেইন্ট জার্মেইতে দেখতে চেয়েছিলেন, ‘সত্যি বলতে, আমি চাচ্ছিলাম, মেসি (বার্সেলোনা ছেড়ে) মুভ করুক। মুভ করে ম্যান সিটিতে যাক অথবা পিএসজিতে যাক।’

আইসিসির ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ অলরাউন্ডার সাকিব যেমন মেসির পাঁড় ভক্ত, তেমনি বার্সেলোনাও তার প্রিয় ক্লাব। তবে কেন এমন ভিন্ন কিছুর প্রত্যাশা করেছিলেন তিনি? সেই ব্যাখ্যায় বাঁহাতি তারকা বলেছেন, ‘আমার ধারণা, ওই দুই জায়গায় গেলে মেসি অনেক ভালোভাবে খেলতে পারত। স্বাধীনভাবে খেলতে পারত। যেহেতু ওর ক্যারিয়ারের একদম শেষ সময়। ও হয়তো এই বছর আর পরের বছরটা খুব ভালোভাবে উপভোগ করতে পারত। যেটা হয়তো বার্সেলোনাতে অতটা সম্ভব হয় নয়। কারণ, গত তিন-চার বছর ওর একার ওপর অনেক চাপ পড়ছে।’

গত মৌসুম শিরোপাবিহীন কাটার পরও মেসি যেহেতু বার্সাতেই অন্তত আরও এক মৌসুমের জন্য থেকে গেছেন, তাই ভক্ত সাকিবের আশাবাদ, ভবিষ্যতে ক্লাব ছাড়ার আগে যেন শিরোপার স্বাদ নিতে পারেন সময়ের অন্যতম সেরা এই ফুটবলার, ‘কিন্তু শেষ পর্যন্ত যেহেতু ও বার্সেলোনাতেই আছে, আমি চাইব, ও যেন নিজের সেরাটা দিয়ে বার্সেলোনাকে শিরোপা জিতিয়ে এরপরই বের হতে পারে। যদি ও বের হতে চায় আর কী।’

Comments

Bangladesh

Confirmed
462,407
Deaths
6,609
Recovered
378,172
Active
77,626
Last updated: নভেম্বর ৩০, ২০২০ - ১:৪৮ পূর্বাহ্ণ (+০০:০০)