যে কারণে ‌‌‌’সুপার ভ্যারিয়েন্ট’ ওমিক্রন নিয়ে এত উদ্বেগ

24

করোনার বিরুদ্ধে বিশ্ববাসীর লড়াই যে এখনো শেষ হয়নি, সেটাই নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট বি.১.১.৫২৯ সার্স–কভ–২ চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে।

দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম শনাক্ত হওয়া করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন আরও বেশি ভয়ংকর ও শক্তিশালী বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও)।

এবার ওমিক্রন আনুষ্ঠানিকভাবে ‘উদ্বেগজনক ভ্যারিয়েন্ট’ এর তকমা পেয়েছে।

রূপ বদলেই করোনা ভাইরাসের এই ধরন নিজের ক্ষমতা বাড়াচ্ছে। আগের সব ভ্যারিয়েন্টের চেয়ে এই ভ্যারিয়েন্ট অনেক বেশি দ্রুত সংক্রমণ ঘটাতে সক্ষম। এমনকি করোনার নতুন এই ধরনটি টিকার কার্যকারিতাকেও ফাঁকি দেওয়ার সক্ষমতা অর্জন করে থাকেতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।
এ কারণে নতুন ধরন ওমিক্রনকে বলা হচ্ছে ‌‌‌’সুপার ভ্যারিয়েন্ট’।

ওমিক্রনের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে বেশ কয়েকটি দেশ। হংকং এবং বেলজিয়ামেও নতুন ধরনটির খোঁজ মিলেছে বলে সিএনএন এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

দক্ষিণ আফ্রিকার ‘সেন্টার ফর এপিডেমিক রেসপন্স অ্যান্ড ইনোভেশন’ এর প্রধান তুলিও ডি অলিভিয়েরাও নতুন এই ধরন সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করে জানিয়েছেন, তারা করোনার নতুন এই ধরনটির দিকে কড়া নজর রেখেছেন।

এক টুইটার পোস্টে তিনি উদ্বেগ জানিয়ে লিখেছেন, মিউটেশনের এই পর্যায়ে পৌঁছে নতুন ভ্যারিয়্যান্টটি সত্যিই ভয়ংকর। দক্ষিণ আফ্রিকা ও গোটা আফ্রিকারই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে আর্থিক ও বৈজ্ঞানিক সহায়তা প্রয়োজন। যেন এটি সারা বিশ্বে ছড়িয়ে না পড়ে।

তবে এর বিস্তার রুখে দেওয়া কতখানি সম্ভব, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেই যাচ্ছে। ইতোমধ্যেই এই ভয়ংকর ধরনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি বৈঠক বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ওয়ার্ল্ড ট্রেড অর্গানাইজেশন (ডাব্লিউটিও)।

Comments
[covid19 country="Bangladesh" title="Bangladesh"]