ভারতের করোনা ওয়ার্ডের চিকিৎসকের কাণ্ড

56

ভারতের রাজধানী দিল্লির একটি বেসরকারি হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডের এক আবাসিক চিকিৎসক আত্মহত্যা করেছেন। ওই চিকিৎসকের নাম ডা. বিবেক রায়। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৩২ বছর।

শনিবার (১ মে) রাতে ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (আইএমএ) সাবেক প্রধান ডা. রবি ওয়ানখেদকর এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) গত এক মাস ধরে কর্মরত ছিলেন ওই তরুণ চিকিৎসক। করোনা রোগীদের চিকিৎসার দায়িত্বেই ছিলেন তিনি, মরণাপন্নদের সিপিআর (CPR) এবং এসিএলএস (ACLS) দিতেন। প্রতিদিনের সাত থেকে আটজন রোগীর মধ্যে প্রায় বেশিরভাগই বাঁচতেন না। এই পরিস্থিতিতেই হতাশায় চলে যান ওই চিকিৎসক। শেষে আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেন ডাঃ বিবেক। গোরক্ষপুরের ভীষণ মেধাবী চিকিৎসক ছিলেন এই তরুণ। প্রায় শতাধিক মানুষের প্রাণ বাঁচিয়েছেন এই মহামারীর সময়ে।’

এই তরুণ চিকিৎসকের মৃত্যুর জন্য অপবিজ্ঞান, অপরাজনীতি ও প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে না পারা ‘খারাপ প্রশাসনকে’ দায়ী করেছেন আইএমএয়ের এই সাবেক প্রধান।

Comments

Bangladesh

Confirmed
777,397
+1,140
Deaths
12,045
+40
Recovered
718,249
Active
47,103
Last updated: মে ১২, ২০২১ - ২:১৭ অপরাহ্ণ (+০০:০০)