নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় অসংগতির অভিযোগ

36

নিজস্ব প্রতিবেদক: সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজে চারজন বিদেশী ডাক্তারদের চিকিৎসা প্রদানে নিবন্ধন দেওয়া হয়েছে। যে প্রক্রিয়ায় এই নিবন্ধন করা হয়েছে তাতে অসঙ্গতি রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

তাদের অভিযোগ, যে চারজনকে নিবন্ধন দেওয়া হয়েছে তাদের কোন ধরণের পরিচয় নেই। তারা ডাক্তার কিনা তা কেউ জানেন না। তাছাড়া, কোন নিবন্ধন দিতে হলে পরীক্ষার মাধ্যমে আসতে হয়। কিন্তু এসবের কিছুই দেওয়া হয়নি।

সূত্র জানায়, ওই চারজন বিদেশী ডাক্তাররা হলেন- ডা. সন্তোষ কসাই, ডা. এইচ ভি সাতিষ বাবু, ডা. মারুথেস গোউডা চিকাপ্পা এবং ডা. কিরন নাগরাজ। তারা নভেম্বরের ৩০ ও ডিসেম্বরের ১ তারিখ অস্থায়ীভাবে নিবন্ধন পেয়েছেন।

বাংলাদেশ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল (বিএমডিসি) তাদের অস্থায়ী রেজিস্ট্রেশন দিয়েছে বলে জানা যায়। কিন্তু পরীক্ষা না দিয়ে রেজিস্ট্রেশন কিভাবে পেয়েছেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

এই চারজন ডাক্তার কিভাবে বা কাদের খরচে আসবেন? তার কোন প্রক্রিয়াও জানাননি বিএমডিসি।

তাছাড়া, এটি কোন জাতীয় পত্রিকায় না দেওয়াও নির্দেশনা দিয়েছেন সংগঠনটি। যা নিয়মবহির্ভূত।

সংশ্লিষ্টরা অভিযোগ করেন, এসব চিকিৎসক রোগীদের ভারতে যাবার পরামর্শ দিবেন বলেই তাদের ধারণা।

তারা অভিযোগ করেন, শিক্ষা প্রশিক্ষণ এর নামে চাপাবাজী করার অবকাশ নাই। কারণ তারা সব একটা হাসপাতাল থেকে আসছেন। নিশ্চয় সব ভাল ডাক্তার এক হাসপাতালের থাকে না, আর তারা কেউ এমন কোন বিশেষজ্ঞ না, যে বিষয়ে বাংলাদেশে ঘাটতি আছে।

তাদের অভিযোগ, বাংলাদেশে নিউরোলজিস্ট, অর্থপেডিক সার্জন, ল্যাপারোস্কপিক সার্জন, পেডিয়াট্রিশিয়ান এই বিশেষজ্ঞ অনেকই আছেন। বরং দেশীয় চিকিৎসকদের সুযোগ না দিতেই রোগীদের বিদেশমুখী করাই এই প্রক্রিয়া।

বিএমডিসির এমন কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানান এফডিএসআরের উপদেষ্টা ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ডা. আব্দুন নূর তুষার, এফডিএসআরের সভাপতি ডা. আবুল হাসনাত মিল্টন, মহাসচিব ডা. শেখ আব্দুল্লাহ আল মামুন, যুগ্ন মহাসচিব ডাঃ আসাদুজ্জামান খান রিন্টুসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেলের কর্মরত ডাক্তাররা।

Comments
[covid19 country="Bangladesh" title="Bangladesh"]