দুঃখজনক যে, সুশীল সমাজ বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে সুর মিলিয়েছিল: ড. আবুল বারকাত

22

ড. আবুল বারকাত বলেন, দুঃখজনক হলেও সত্যি যে দেশের সুশীল সমাজ অনেকেই বিবৃতি ও লেখনীর মাধ্যমে বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে সুর মিলিয়েছিল। তারা প্রধানমন্ত্রীর নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণের ঘোষণাকে অবাস্তব বলে উড়িয়ে দিয়েছিল।

শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে বঙ্গবন্ধু পরিষদের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

‘পদ্মা সেতু সাহসিকতা, সততা ও সক্ষমতার উজ্জ্বল উদাহরণ’ শীর্ষক এই সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি ডা. এসএ মালেক। প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সভাপতি ড.আবুল বারকাত।

আলোচনা সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বঙ্গবন্ধু পরিষদের প্রেসিডিয়াম সদস্য অজিত কমার সাহা। তিনি বলেন, পদ্মা সেতু বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সক্ষমতার এক উজ্জ্বল ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। এর মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসিকতা, সততা এবং দূরদর্শিতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন হয়েছে। দেশীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে নিজস্ব অর্থে এই সেতু নির্মিত হওয়ায় বিশ্বে বাংলাদেশকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন প্রধানমন্ত্রী।

ডা. এসএ মালেক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বের সৎ রাষ্ট্র নেতাদের একজন। তিনি বলেই পদ্মা সেতু নিয়ে বিশ্ব ব্যাংকের করা অভিযোগকে চ্যালেঞ্জ করতে পেরেছিলেন।

আরও বক্তব্য রাখেন প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আজম শফিউল আলম ভূঁইয়া, পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক ডা. আব্দুল্লাহ আল মামুন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. অরুন কুমার গোস্বামী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. চন্দ্রনাথ পোদ্দার, বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিন আহমেদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. শফিউল আলম ভূঁইয়া প্রমুখ। আলোচনা সভা সঞ্চালনা করেন পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক মতিউর রহমান লাল্টু।

Comments
[covid19 country="Bangladesh" title="Bangladesh"]