ক্রিকইনফোর বর্ষসেরা একাদশে সাকিব-মুশফিক-মোস্তাফিজ

13

গত বছর টেস্ট ও টি-টোয়েন্টিতে সময় ভালো কাটেনি বাংলাদেশের। তবে বরাবরের মতো ওয়ানডেতে উজ্জ্বল পারফরম্যান্স ছিল টাইগারদের।

তার পুরস্কারও পেলেন বাংলাদেশের তিন ক্রিকেটার। ক্রিকেট বিষয়ক জনপ্রিয় গণমাধ্যম ক্রিকইনফোর বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশে জায়গা করে নিয়েছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান, ব্যাটার-উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিম ও পেসার মোস্তাফিজুর রহমান।

বাংলাদেশ ছাড়াও এই একাদশে তিন ক্রিকেটার রয়েছে আয়ারল্যান্ডের। দু’জন করে আছেন পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার। একজন দক্ষিণ আফ্রিকার। তবে ক্রিকইনফোর বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশে জায়গা হয়নি ভারত, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কোনো ক্রিকেটারের।

২৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত ক্রিকেটারদের পরিসংখ্যান বিবেচনায় নিয়ে এই একাদশ সাজানো হয়েছে। যেখানে অধিনায়ক হিসেবে আছেন পাকিস্তানের বাবর আজম। উইকেটরক্ষক রাখা হয়েছে মুশফিককে। অবশ্য কয়েক মাস আগে গ্লাভস হাতে আর দাঁড়াবেন না জানান তিনি।

গত বছর ব্যাট হাতে ৩৯.৫৭ গড়ে ২৭৭ রান করেন সাকিব। বল হাতে ১৭.৫২ গড়ে নেন ১৭ উইকেট। ‍মুশফিক ৫৮.১৪ গড়ে করেন ৪০৭ রান। তার মধ্যে উইকেটরক্ষক ও ফিল্ডার হিসেবে ১০ ক্যাচ নেন তিনি। মোস্তাফিজ ২১.৫৫ গড়ে নেন ১৮ ‍উইকেট।

একমাত্র বাংলাদেশ হিসেবে ৭.৪৮ ইকোনমি রেটে ৫৯ উইকেট নিয়ে ক্রিকইনফোর বর্ষসেরা টি-টোয়েন্টি একাদশে জায়গা পেয়েছেন ‘ফিজ’। তবে টেস্টে নেই কোনো বাংলাদেশি।

ক্রিকইনফোর বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশ: পল স্টার্লিং (আয়ারল্যান্ড), ফখর জামান (পাকিস্তান), বাবর আজম (পাকিস্তান), রসি ফন ডার ডুসেন (দক্ষিণ আফ্রিকা), সাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ), মুশফিকুর রহিম (বাংলাদেশ), ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা (শ্রীলঙ্কা), সিমি সিং (আয়ারল্যান্ড), জশ লিটল (আয়ারল্যান্ড), ‍দুষ্মন্ত চামিরা (শ্রীলঙ্কা), মোস্তাফিজুর রহমান (বাংলাদেশ)।

Comments
[covid19 country="Bangladesh" title="Bangladesh"]