‘করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের পূর্বাভাস পাচ্ছি’

362

দেশে কভিড-১৯ এর তৃতীয় ঢেউয়ের পূর্বাভাস পাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য এবং ভাইরোলজিস্ট অধ্যাপক ডা. নজরুল ইসলাম।

আজ শুক্রবার এই কথা জানান তিনি। তিনি আরও বলেন, কভিড-১৯ রেসপিরেটরি ভাইরাস গ্রুপের একটি ভাইরাস।

তিনি বলেন, দেশে কভিড-১৯ এ চলমান দ্বিতীয় ঢেউয়ে সংক্রমণ কমতে শুরু করেছে। তবে ভাইরাসের গতিপ্রকৃতি নিয়ে কাজ করতে গিয়ে মার্চে তৃতীয় ঢেউয়ের পূর্বাভাস পাচ্ছি। তাই স্বাস্থ্যবিধি মানা এবং টিকা কর্মসূচিতে ঢিল দেওয়া যাবে না।

সেপ্টেম্বর থেকে দেশে করোনা সংক্রমণ কমতে শুরু করেছে। কারণ ইনফ্লুয়েঞ্জা সক্রিয় হচ্ছিল। নভেম্বর, ডিসেম্বর, জানুয়ারি, ফেব্রুয়ারি এবং মার্চের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত রেসপিরেটরি ভাইরাস গ্রুপের অন্য ভাইরাস সক্রিয় থাকবে। এই ভাইরাসের অন্যতম বৈশিষ্ট্য একটি ভাইরাস শরীরের এক অংশে ঢুকলে অন্য ভাইরাসকে আর ঢুকতে দেয় না।

তিনি বলেন, ইনফ্লুয়েঞ্জা, রাইনো ভাইরাস ফুসফুস কিংবা শরীরের যে কোনো অংশে ঢুকলে কভিড-১৯-কে আর ঢুকতে দেবে না। এটা নিয়ে আমরা গবেষণা করছি। ফলাফল হাতে এলে আরও পরিষ্কার করে ধারণা দেওয়া যাবে। ভাইরাসের গতি-প্রকৃতি দেখে মনে হয় মার্চের দিকে বেড়ে আবার মে মাসে কমতে পারে। এই ঢেউয়ের শঙ্কা থাকাতে অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে, ধারাবাহিকভাবে টিকাদান কর্মসূচি চালিয়ে যেতে হবে।

Comments
[covid19 country="Bangladesh" title="Bangladesh"]