আজ দেখা যাবে বিস্ময়কর তুষার চাঁদ

11

ফাল্গুনের এই পূর্ণিমার রাতে আকাশে দিকে তাকালে দেখা মিলবে বিরল তুষার চাঁদ বা স্নো মুনের। মার্কিন স্পেস এজেন্সি নাসা জানায়, বুধবার ১৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ১৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত রাতের আকাশে স্নো মুন দেখা যাবে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন বুধবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

নাসা জানায়, এদিন শুধু স্নো মুনই নয়, আকাশের উত্তর গোলার্ধে হারবিঙ্গার অব স্প্রিং নামে একটি উজ্জ্বল নক্ষত্রেও দেখা মিলবে।

ফেব্রুয়ারিতে দৃশ্যমান এই পূর্ণিমার স্নো মুন ছাড়াও অনেক নাম রয়েছে। একে স্টর্ম মুনও বলা হয়। এই সময়ে পৃথিবীর অনেক জায়গায় প্রবল তুষারপাত হয় বলে এই নামকরণ করা হয়েছে।

এছাড়া বছরের এই সময় তুষার ও ঝড়ো আবহাওয়ায় শিকার করা হয়ে যায়। এজন্য এই চাঁদকে হাঙ্গার মুন এবং ফেব্রুয়ারি মুনও বলা হয়। এই চাঁদের আরেকটি নাম চাঁদকে ক্যান্ডেল মুন। প্রাচীন ইউরোপে এই নামে ডাকা হতো ফেব্রুয়ারির পূর্ণিমাকে। কারণ ২ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হওয়া খ্রিস্টান উৎসব ক্যান্ডেলমাসের সময়ে এই পূর্ণিমার চাঁদ আকাশে দেখা যায়।

নাসা জানায়, ফেব্রুয়ারির এই পূর্ণিমা বৌদ্ধ ধর্মেও গুরুত্ব বহন করে। এই সময়ই বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা মাঘী পূর্ণিমা পালন করে। এই মাঘী পূর্ণিমাতেই বুদ্ধ ও তার প্রথম ১২,৫০ জন অনুসারী ঐতিহাসিক সমাবেশে মিলিত হয়েছিল।

১৯৩০ সালে থেকে চাঁদের এই ধরনের নাম দেওয়া চল শুরু হয়। তখন নেটিভ আমেরিকান নামগুলো মায়েন ফার্মার্স অ্যালমানাকে প্রকাশিত হয়েছিল।

২০২২ সালে আরও ১০টি পূর্ণিমা দেখা যাবে। যার মধ্যে দুইবার আকাশে দেখা মিলবে সুপারমুনের। ফার্মার্স অ্যালমানাক অনুযায়ী ২০২২ সালে আরও যেসব পূর্ণিমা দেখা যাবে :
* মার্চ ১৮: ওয়ার্ম মুন
* এপ্রিল ১৬: পিঙ্ক মুন
* মে ১৬: ফ্লাওয়ার মুন
* জুন ১৪: স্ট্রবেরি মুন
* জুলাই ১৩: ব্লাক মুন
* আগস্ট ১১: স্টারজন মুন
* সেপ্টেম্বর ১০: হার্ভেস্ট মুন
* অক্টোবর ৯: হান্টার মুন
* নভেম্বর ৮: বিভার মুন
*ডিসেম্বর ৭: কোল্ড মুন

Comments
[covid19 country="Bangladesh" title="Bangladesh"]