অমিত শাহের ওপর নিষেধাজ্ঞার দাবি মার্কিন কমিশনের

13

বিরোধীদের তীব্র প্রতিবাদের ভেতর ভারতের লোকসভায় পাস হয়ে গেল নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (ক্যাব) ২০১৯। রাজ্যসভায় বিলটি পাস হলে তা আইনে পরিণত হবে। হাফিংটন পোস্ট ইন্ডিয়া জানায়, সোমবার মধ্যরাতে লোকসভায় এই বিল পাসের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

পার্লামেন্টের দুই কক্ষেই বিলটি পাস হয়ে গেলে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের ওপর নিষেধাজ্ঞা আনার দাবি জানিয়েছে আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা সংক্রান্ত মার্কিন কমিশন (ইউএসসিআইআরএফ)।

লোকসভায় অমিত শাহের উত্থাপিত এই বিলকে ‘ভুল দিকে বিপজ্জনক বাঁক’ বলে মন্তব্য করেছে মার্কিন কমিশনটি।

প্রস্তাবিত আইনে বলা হয়েছে, ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৪ সাল পর্যন্ত পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান থেকে যে হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন, পার্সি ও খ্রিস্টানরা ‘ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার’ হয়ে ভারতে এসেছে তাদের বেআইনি অনুপ্রবেশকারী হিসেবে ধরা হবে না। তাদের ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। তবে বিলটিতে প্রতিবেশী দেশ থেকে যাওয়া মুসলিমদের বিষয়ে কোনো উল্লেখ নেই।

ইউএসসিআরএফ জানায়, ‘এই বিল একটা বিপজ্জনক দিকে বাঁক নিচ্ছে। এটি ভারতের ধর্মনিরপেক্ষ ও ধর্মীয় বহুত্ববাদ বিরোধী। সেইসঙ্গে ভারতীয় সংবিধানের পরিপন্থী, যেখানে জাতি ধর্ম নির্বিশেষে সকল বিশ্বাসকে সমতা দেয়া হয়েছে।’

এনডিটিভি জানায়, মার্কিন কমিশনটির দাবি, মুসলিম অভিবাসীদের বাদ দিতে বিলটিতে ধর্মকে মানদণ্ড হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে।

এই বিলের পাসের মাধ্যমে আসামের পাশাপাশি দেশব্যাপী এনআরসি চালু করার যে মনোভাব অমিত শাহ দেখিয়েছেন, সেই প্রসঙ্গে কমিশনের বক্তব্য, ‘ইউএসসিআরএফ আশঙ্কা করছে ভারত সরকার ভারতীয় নাগরিকদের ধর্মের পরীক্ষা নিতে চাইছে। এর ফলে সেখানকার কোটি কোটি মুসলিমরা সমস্যায় পড়তে পারেন।’

Comments

Bangladesh

Confirmed
244,020
+1,918
Deaths
3,234
+50
Recovered
139,860
Active
100,926
Last updated: আগস্ট ৪, ২০২০ - ১:৪৭ অপরাহ্ণ (+০০:০০)