শাস্তির মুখে নৌকার বিরোধিতাকারী আ.লীগের অনেক নেতা

16

নিজস্ব প্রতিবেদক : উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীদের বিরুদ্ধে যেসব নেতা অবস্থান নিয়েছেন, তাদের বিরুদ্ধে বহিস্কারের মতো কঠিন সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে দলটি। একই সঙ্গে এতে যেসব নেতার পরোক্ষ ইন্ধন রয়েছে, তাদের শোকজ করবে দলটি। শোকজের জবাব সন্তোষজনক না হলে বহিস্কার হবেন তারাও।

শুক্রবার বিকেল থেকে গণভবনে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ এবং কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বৈঠকে অংশ নেয়া একাধিক নেতা রাইজিংবিডিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বৈঠক সূত্র জানায়, উপজেলা নির্বাচনে নৌকার পক্ষে মনোনয়ন পাওয়াদের বিপক্ষে কাজ করেছেন দলের অনেকে। এই তালিকায় রয়েছেন অনেক এমপিও। যারা নৌকার বিপক্ষে ছিলেন তাদের সরাসরি বহিস্কার করবে দল। অন্যদিকে যারা পরোক্ষভাবে এতে ইন্ধন দিয়েছে, তাদের শোকজ করা হবে। ১৫ দিনের সময়সীমা বেঁধে দেয়া হবে তাতে। এই সময়ের মধ্যে সন্তোষজনক উত্তর না দিতে পারলে বহিস্কার হবেন তারাও।

এর আগে বৈঠকে উপদেষ্টাদের আরো বেশি সক্রিয় হওয়ার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, ‘উপদেষ্টারা থিঙ্কট্যাংকের মতো। আমি এইটুকু চাইবো, আপনাদের সবাইকে আরেকটু সক্রিয় হতে হবে। আমাদের অফিস, সব ব্যবস্থা কিন্তু আছে। প্রত্যেকটা বিষয়ের উপ-কমিটিও করা আছে। আপনারা অনেকে বসেন, মিটিং করেন, সেমিনার করেন, সেগুলো অব্যাহত রাখতে হবে এবং ভবিষ্যতের জন্য পরিকল্পনাগুলো নিতে হবে।’

‘সংগঠনকে শক্তিশালী করে গড়ে তোলা প্রয়োজন। পাশাপাশি আগামী দিনে আমরা দেশকে কোথায় নিয়ে যেতে চাই সেই পরিকল্পনা আমাদের আছে। আমাদের ধাপে ধাপে এগিয়ে যেতে হবে। বাধাগুলো অতিক্রম করতে হবে। তার জন্য আমাদের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন, সাংগঠনিকভাবে দলকে শক্তিশালী করা, জনমত সৃষ্টি করা।’