প্রিয়া সাহার এনজিওর ওপর নজরদারির দাবি

74

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রিয়া সাহার এনজিওর ওপর নজরদারির দাবি জানানো হয়েছে। ফেসবুকে তাকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

জানা গেছে, প্রিয়া সাহার প্রকৃত নাম প্রিয় বালা বিশ্বাস।তিনি বৈদেশিক অনুদানে পরিচালিত ‘সারি’ নামের একটি এনজিওর নির্বাহী পরিচালক। তার স্বামী দুদক কর্মকর্তা। দুই ছেলে তারাও আমেরিকা থাকেন।

ফেসবুকে কেউ কেউ ধারনা করে লিখেছেন, তিনি আমেরিকার নাগরিকত্ব পাওয়ার জন্য এমন মিথ্যাচার করেছেন।

নৌ, সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আশিষ কুমার দে ফেসবুক লিখেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নিপীড়নের বিষয়ে চরম  মিথ্যাচার করে দেশের সুনাম ক্ষুন্ন করেছেন। একই সঙ্গে এই জনগোষ্ঠীকে ঝুঁকির মুখে ফেলে দেয়ার অপপ্রয়াস চালিয়েছেন। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

তিনি লিখেছেন, দলিত সম্প্রদায়কে পূঁজি করে দীর্ঘদিন এনজিও ব্যবসা চালিয়ে নিজে কোটিপতি হয়ে দুই সন্তানকে মার্কিন মুলুকে পাঠানোর পর দুদক কর্মকর্তা স্বামীকে নিয়ে গোটা পরিবারসহ সেখানকার নাগরিকত্ব লাভের অসৎ উদ্দেশে প্রিয়া সাহা এমন গর্হিত কাজ করেছেন বলে আমার ধারণা। এখন তিনি হয়তো সেখানে রাজনৈতিক আশ্রয় চাইবেন!

তিনি অবিলম্বে প্রিয়া সাহা পরিচালিত এনজিও ‘সারি’র কার্যক্রমের ওপর কঠোর নজরদারির দাবি জানিয়েছেন।