‘স্বাস্থ্যসেবা ও সুরক্ষা আইন-২০১৮’ নিয়ে এফডিএসআরের জরুরী সভা অনুষ্ঠিত

218

নিজস্ব প্রতিবেদক: এফডিএসআর এর কেন্দ্রীয় কাযকরী সদস্যদের উপস্থিতিতে ‘স্বাস্থ্যসেবা ও সুরক্ষা আইন ২০১৮’ নিয়ে এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (৩ নভেম্বর) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় প্রস্তাবিত স্বাস্থ্যসেবা ও সুরক্ষা আইন ২০১৮ এর প্রতিটি ধারার অসঙ্গতি উপদেষ্টা ডাক্তার আব্দুন নূর তুষার বিস্তারিত আলোচনা করেন।

অধ্যাপক ডাক্তার নোমান চৌধুরী তার বিশ্লেষণ তুলে ধরেন।

সভায় উপস্থিত সকল সদস্যগণ তাদের মতামত প্রদান করেন এবং সর্বসম্মতিক্রমে নিম্নলিখিত সিদ্ধান্ত সমূহ গৃহীত হয়।

সভায় যা সিদ্ধান্ত হয়:-

১। প্রস্তাবিত স্বাস্থ্যসেবা ও সুরক্ষা আইন ২০১৮ অসঙ্গতিপূর্ণ ও ভুলে ভরপুর। চিকিৎসকদের স্বার্থ ও নিরাপত্তা রক্ষার বিষয়ে এটা পরিপূর্ণ আইন নয়। পাশাপাশি এই আইন রোগী সুরক্ষার বিষয়ের সকল দিক ও পরিপূর্ণভাবে পূরণ করে না বিধায় একটি বিকল্প ” চিকিৎসক সুরক্ষা আইন” প্রস্তাবনার ও প্রণয়নের দাবী উত্থাপন এর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

২। এফ ডি এস আর এর পক্ষ হতে একটি বিকল্প চিকিৎসক সুরক্ষা আইন প্রণয়নের লক্ষ্যে ৬ সদস্য বিশিষ্ট উপ কমিটি গঠন করে সম্ভাব্য স্বল্পতম সময়ে এই কমিটিকে একটি যুগোপযোগী “চিকিৎসক সুরক্ষা আইন” প্রস্তাবিত আকারে প্রদানের দায়িত্ব প্রদান করা হয় ।

৩। “চিকিৎসক সুরক্ষা আইন” প্রস্তাবনা প্রণয়ন কমিটি। ডাক্তার আব্দুন নূর তুষার অধ্যাপক আবুল হাসনাৎ মিল্টন প্রফেসর ডাক্তার নোমান চৌধুরী শেখ আব্দুল্লাহ আল মামুন ডাক্তার ফরহাদ মঞ্জুর ডাক্তার মো রাশিদুল হক।

৪। সভায় আগামী ১০ দিনের মধ্যে প্রস্তাবিত স্বাস্থ্যসেবা ও সুরক্ষা আইন ২০১৮ আইন নিয়ে বিভিন্ন অংশীদারগণ বিপিএম পি এ,/ বি এম এ / স্বাচিপ /সাংবাদিক/বিএফইউজে /রিপোর্টার্স ইউনিটি // বেসরকারি ডায়াগনস্টিক মালিক সমিতি/বেসরকারি ক্লিনিক মালিক সমিতি/কনজিউমার অ্যাসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ/ডিপ্লোমা নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন / এর অংশ গ্রহণে গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

৫। সভায় উপদেষ্টা ডাঃ আব্দুন নুর তুষার ও অধ্যাপক আবুল হাসানাৎ মিল্টন প্রস্তাবিত স্বাস্থ্যসেবা ও সুরক্ষা আইন ২০১৮ আইনের বিভিন্ন অসংগতি তুলে ধরে জাতীয় দৈনিকে কলাম লিখবেন এই সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

৬। সম্ভাব্য স্বল্পতম সময়ে আলাদাভাবে এফডিএসআর এর প্রতিনিধিগন ইচিপ এর সাথে চিকিৎসা সুরক্ষা আইন নিয়ে মত বিনিময় করবেন এই সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।