যৌন সংসর্গে ডেঙ্গু ছড়ানোর প্রমাণ মিলেছে

5

নিজস্ব প্রতিবেদক: এত দিন মনে করা হচ্ছিল, ডেঙ্গু কেবল মশার মাধ্যমেই ছড়ায়। কিন্তু স্পেনের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ যে তথ্য দিয়েছে, তা বেশ উদ্বেগের। তারা বলছে, যৌন সংসর্গেও ডেঙ্গু ছড়াতে পারে। অন্তত একজন রোগীর ক্ষেত্রে যৌন সংসর্গে ডেঙ্গু সংক্রমণের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। দ্য টেলিগ্রাফের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

মাদ্রিদ অঞ্চলের জনস্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা সুজানা জিমেনেজ বলেছেন, মাদ্রিদের ৪১ বছর বয়সী এক পুরুষের ক্ষেত্রে যৌন সংসর্গে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার প্রমাণ মিলেছে। তিনি তাঁর এক পুরুষ সঙ্গীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করেছিলেন। তাঁর এই সঙ্গী কিউবা ভ্রমণে গিয়েছিলেন। তিনি তখন মশার কামড়ে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন।

সুজানা আরও বলেন, গত সেপ্টেম্বরে ওই ব্যক্তির ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়। বিষয়টি চিকিৎসকদের বিস্মিত করে। কারণ, তিনি এমন কোনো দেশ বা এলাকায় যাননি, যেখানে ডেঙ্গুর উপদ্রব রয়েছে। তবু তাঁর শরীরে প্রচণ্ড জ্বর, শরীর ব্যথার মতো নানা উপসর্গ দেখা যায়। তাঁর সঙ্গীরও দিন দশেক আগে একই রকমের উপসর্গ দেখা দিয়েছিল। দুজনের শুক্রাণু পরীক্ষা করে দেখা যায়, তাঁদের শরীরে ডেঙ্গুর ভাইরাস রয়েছে। আর এই ভাইরাসের উপস্থিতি কিউবাতে রয়েছে।

মাদ্রিদ অঞ্চলের জনস্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা সুজানা আরও বলেন, নারী ও পুরুষের মধ্যে শারীরিক সম্পর্কে সম্ভাব্য ডেঙ্গু সংক্রমণের বিষয়টি নিয়ে সম্প্রতি দক্ষিণ কোরিয়ায় একটি বৈজ্ঞানিক নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে।

স্টকহোমভিত্তিক ইউরোপিয়ান সেন্টার ফর ডিজিজ প্রিভেনশন অ্যান্ড কন্ট্রোল (ইসিডিসি) বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছে, তাদের জানা মতে, পুরুষের সঙ্গে পুরুষের শারীরিক সম্পর্কে ডেঙ্গু সংক্রমণের এটিই প্রথম ঘটনা।

ডেঙ্গু জ্বর মূলত এডিস এজিপ্টি মশার কামড়ে হয়। এডিস এজিপ্টি মশা মূলত ট্রপিক্যাল বা সাব ট্রপিক্যাল এলাকায় বসবাস করে। এরা ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা পছন্দ করে।

বিশ্বে প্রতি বছর ১০ কোটির বেশি মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়। আর মারা যায় প্রায় ১০ হাজার মানুষ।

চলতি বছরের শুরুতে গবেষকেরা সতর্ক করে বলেন, আগামী ৬০ বছরের মধ্যে বিশ্বের অধিকাংশ অঞ্চলে ডেঙ্গু ছড়িয়ে পড়বে।

বাংলাদেশে এ বছর ডেঙ্গু মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। ডেঙ্গু জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা লাখ ছাড়িয়েছে। এর আগে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে এত মানুষ হাসপাতালে ভর্তি হয়নি। এবারই প্রথম ঢাকাসহ ৬৪ জেলায় এই রোগ ছড়িয়েছে।

এবার ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে শতাধিক মানুষ মারা গেছে। বেসরকারি হিসাবে, ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা প্রায় তিন শ। আর সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) বলছে, এ বছর ১০৭টি মৃত্যু নিশ্চিতভাবে ডেঙ্গুতে হয়েছে। এই সংখ্যাও ডেঙ্গুতে মৃত্যুর নতুন রেকর্ড।