ভাইরাল সেই ভিডিও নিয়ে মুখ খুললেন ডেইজী

6

সংরক্ষিত আসনে কাউন্সিলর থাকাবস্থায় রাজধানীর বিমানবন্দর এলাকায় ফগার মেশিন বসিয়ে ’যুদ্ধেংদেহী’ কায়দায় মশা মারতে গিয়ে ফেসবুকে ব্যাপক সমালোচিত হয়েছিলেন আলেয়া সারোয়ার ডেইজী।

এবার ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত এই কাউন্সিলর প্রার্থী হেরে যাওয়ার পর নতুন করে আবার আলোচনায় আসে তার ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিও।

সম্প্রতি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে সেই ভাইরাল ভিডিওর বিষয়ে কথা বলেন।

সেই ভিডিও নিয়ে সমালোচনার জবাবে ডেইজী বলেন, ‘অনেকে না জেনে (সমালোচনা) করে থাকে। তখন মশার জন্য আমাদের ফ্লাইট ডিলে হচ্ছিল। এয়ারপোর্টের ভেতরে সিভিল এভিয়েশন (মশা মারার) কাজ করার কথা, কিন্তু তারা করেনি।’

‘আর (অন্যদের) ভেতরে ঢোকা তো নিষেধ। সে কারণে ভেতরের দিকে মশা মারার জন্য একটি ও নিচে মারার জন্য আরেকটি ফগার মেশিন বসিয়েছিলাম। সেটি দেখতে অন্যরকম হয়ে গিয়েছিল, অনেকে ট্রল করেছে। তবে আমার সাহসিকতার জন্য অনেকে প্রশংসাও করেছেন।’

প্রসঙ্গত ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে ডেইজী (লাটিম প্রতীক) হেরে যান। এই ওয়ার্ডে ৬ হাজার ৩১ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন জাতীয় পার্টি (জাপা) সমর্থিত প্রার্থী শফিকুল ইসলাম সেন্টু।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ডেইজী পান ২ হাজার ৯১ ভোট।

আলেয়া সারয়ার ডেইজী যুব মহিলা লীগের সহসভাপতি। এর আগে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, মোহাম্মদপুর থানার সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন তিনি।