বিশেষ নাটকে তিশার সঙ্গে শামীম

8

টিভি নাটকে অভিনয়ের ক্ষেত্রে নুসরাত ইমরোজ তিশা সবসময়ই ভালো ভালো গল্প এবং চ্যালেঞ্জিং চরিত্রকে প্রাধান্য দিয়ে এসেছেন সবসময়ই। স্ক্রিপ্ট পছন্দ হলেই কেবল তিনি অভিনয়ের জন্য সম্মতি দিয়ে থাকেন। তিশার ঠিক তেমনি স্ক্রিপ্ট পছন্দ হওয়া কাজ ‘ছেলেরা এমনই হয়’। আগামী নারী দিবসের জন্য বিশেষভাবে নির্মিত এই নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন ইমরাউল রাফাত। গেলো ২ ও ৩ মার্চ রাজধানীর উত্তরার একটি শূটিং হাউজ ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় নাটকটির দৃশ্যধারণের কাজ শেষ হয়েছে।

নাটকে তিশা অভিনয় করেছেন তিথি চরিত্রে এবং তিশার বিপরীতে শামীম হাসান সরকার অভিনয় করেছেন সৌরভ চরিত্রে। কিছুটা কমেডি ঘরানার এই নাটকটি নিয়ে নির্মাতা ইমরাউল রাফাত অনেক বেশি আশাবাদী। কারণ নাটকটির শেষপ্রান্তে দর্শকের জন্য একটি বার্তাও থাকছে। নাটকটিতে অভিনয় প্রসঙ্গে নুসরাত ইমরোজ তিশা বলেন, ‘সত্যি বলতে কী স্ক্রিপ্ট ভালো লাগলেই কিন্তু আমি নাটকে কিংবা টেলিফিল্মে অভিনয় করি। সেই ক্ষেত্রে ছেলেরা এমনই হয় নাটকটির স্ক্রিপ্ট ভালোলেগেছে বিধায় কাজটি করেছি। কিন্তু সবমিলিয়ে কাজটি কেমন হলো সেটা আসলে দর্শকই ভালো বলতে পারবেন নাটকটি দেখার পর। কারণ আমরা তো একটি ভালো কাজ করি দর্শকের ভালো লাগার জন্যই। আর ইমরাউল রাফাতের নির্দেশনায় এর আগেও অনেক কাজ করেছি। তার কাজের প্রতি আমার আস্থা আছে। এ নাটকে আমার বিপরীতে প্রথম শামীম হাসান সরকার অভিনয় করেছেন। যদি তার সঙ্গে দর্শক এই নাটকটি ভালোভাবে গ্রহণ করে নেন তাহলে হয়তো আগামীতেও আরো ভালো ভালো স্ক্রিপ্টে আমাদের কাজ করা হতেও পারে।’

শামীম হাসান সরকার বলেন, ‘নুসরাত ইমরোজ তিশা আপা আমার ভীষণ পছন্দের একজন অভিনেত্রী। তারসঙ্গে কাজটা ভীষণ উপভোগ করেছি। শুটিংয়ের সময় আমার চরিত্রটি যথাযথভাবে ফুটিয়ে তুলতে তিনি আমাকে খুব সহযোগিতা করেছেন। আমি জানি না দর্শকের কাছে নাটকটি কতটা উপভোগ্য হয়ে উঠবে, তবে তার সঙ্গে ভবিষ্যতে আরো ভিন্ন ধরনের গল্পে কাজ করার আগ্রহ আছে আমার। ‘ছেলেরা এমনই হয়’ নাটকটি আগামী ৮ মার্চ নারী দিবসে গ্লোবাল টিভি অনলাইনে এবং বাংলাভিশনে প্রচার হবে।

এদিকে গেল বছরের ৮ ডিসেম্বর নূসরাত ইমরোজ তিশা দ্বিতীয়বারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত হন। তৌকীর আহমেদের পরিচালিত ‘হালদা’তে অভিনয়ের জন্য তিনি এই পুরস্কারে ভূষিত হন। এর আগে তিনি অনন্য মামুনের ‘অস্তিত্ব’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য প্রথমবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত হন।