‘টাঙ্গাইলে ডা. শহীদুল্লাহ কায়সারের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন’

3579

টাঙ্গাইল বিএমএর মহাসচিব ডা. শহীদুল্লাহ কায়সারের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধার সার্টিফিকেট ছিড়ে ফেলা এবং অবমাননা করার যে অভিযোগটি এসেছে আসলে সেটি অতিরঞ্জিত করা হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

তিনি বলেন, সার্টিফিকেটটি পিন আপ করা অবস্থায় টান দিয়ে বের করার সময় কোনার দিকটা কিছুটা ছিঁড়ে যায়। অভিযোগকারী ব্যক্তি তার অধীনেই ভর্তি থেকে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।

সংশ্লিষ্টরা বলেন, ডাক্তার কায়সার একজন অতি সজ্জন চিকিৎসক এবং তার পক্ষে কোন মুক্তিযোদ্ধা কেন একজন সাধারন রোগীর সাথে এরকম দুর্ব্যবহার করা সম্ভবপর নয় বা তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ বিশ্বাসযোগ্য নয়।

অফিস সূত্র জানায়, রোগী ভর্তি হয়ে এক্সট্রা বেডে অর্থাৎ মেঝেতে ছিলেন এবং ডাক্তার কায়সার বুধবার তাকে রাউন্ডে দেখে কর্তব্যরত নার্সকে বলেন যে তিনি মুক্তিযোদ্ধা এবং রোগীকে বিছানায় তুলে দিতে। রোগীটি নেক অফ দি ফিমার ফ্রাকচার এবং এন্ড আনকন্ট্রোলড্ ডায়াবেটিসে ভুগছেন। বৃহ:স্পতিবার রাউন্ডে রোগীর ফাইলে তার ট্রিটমেন্ট শীট এবং অন্যান্য কাগজ এলোমেলো থাকায় কর্তব্যরত নার্স কে সেটা নিয়ে বলেন এবং মুক্তিযুদ্ধের সনদটি হারিয়ে যাওয়ার শঙ্কায় সেটা সরিয়ে রাখতে বলেন।

বৃহস্পতিবারে ঘটে যাওয়া ঘটনাটি নিয়ে তিন দিন পরে রিয়্যাকশন টা সবার মনেই সংশয়ের সৃষ্টি করে।

সুতরাং কোনো নিরপেক্ষ তদন্ত ছাড়া অথবা সত্য উদঘাটিত না হবার পূর্বে আমাদের তার প্রতি বিষোদগার করা সমীচীন মনে করিনা।