ছাত্রলীগের নির্যাতনের বিচার চেয়ে অবস্থানরত মুকিমের সঙ্গে ছাত্রদলের সংহতি

13

নিজস্ব প্রতিবেদক: ছাত্রলীগের নির্যাতনের শিকার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মুকিমুল নিজেই বিচারের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচী পালন করছেন। নির্যাতিত মুকিমের পাশে গিয়ে তার সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেছে ছাত্রদল।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালযের রাজু ভাস্কর্যে গিয়ে এই সংহতি প্রকাশ করেন সংগঠনটির দুই নেত্রী। তারা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য কানেতা ইয়া লাম-লাম এবং মানসুরা আলম। এরমধ্যে কানেতা ডাকসু নির্বাচনে কমনরুম ও ক্যাফেটরিয়া বিষয়ক সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। অন্যদিকে, মাসনুরা শামসুন্নাহার হল সংসদের সহ-সভাপতি পদের প্রার্থী ছিলেন।

ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল, ঢাবি আহবায়ক রাকিবুল ইসলাম রাকিবকে এবং সদস্য সচিব মো. আমানউল্লাহ আমানের নির্দেশেই দলটির দুই নেত্রী এই সংহতি প্রকাশ করেন বলে জানা যায়।

জানতে চাইলে কানেতা ইয়া লাম-লাম বলেন, ছাত্রলীগের হামলায় আহত ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি বিভাগের ছাত্র মুকিমের প্রতি আমরা সংহতি প্রকাশ করছি। আমরা আর কোন আবরারের লাশ চাইনা। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সকল ধরণের দখলদারিত্ব ও সন্ত্রাস মুক্ত হোক এই দাবি জানাই।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্জেন্ট জহুরুল হক হলে চার শিক্ষার্থীকে রুম থেকে ডেকে নিয়ে নির্যাতন চালায় হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। শিবির সন্দেহে তাদেরকে কয়েক দফায় নির্যাতন করার পর পুলিশে দেওয়া হয়। পরদিন মঙ্গলবার বিকেলে শাহবাগ থানা থেকে মুচলেকা রেখে তাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

ঘটনার বিচারের দাবিতে থানা থেকে ছাড়া পেয়েই রাজু ভাস্কর্যে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে মুকিম চৌধুরী। টানা ২২ ঘন্টা অবস্থানের পর শারীরিক দুর্বলতায় অসুস্থ হয়ে পড়েন বলে জানায় সেখানে উপস্থিত শিক্ষার্থীরা।

পরে ডাকসুর ভিপি নুরুল হক তাকে বৃহস্পতিবার বিকেল তিনটার দিকে একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করে।