আবারও সোহরাওয়ার্দী মেডিকেলের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মাকসুদ

212

নিজস্ব প্রতিবেদক: সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মাকসুদের মেয়াদ দুই বছর বৃদ্ধি করা হয়েছে। তার চাকরির মেয়াদ শেষ হওয়ায় দুই বছরের জন্য একই পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দিয়েছে সরকার। চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের অন্যান্য শর্ত অনুমোদিত চুক্তিপত্র দিয়ে নির্ধারণ করা হবে আদেশে বলা হয়েছে।

এ্যানেসথেসিওলজি বিভাগের এই অধ্যাপককে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের অধ্যাপক হিসেবে দুই বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের পর অধ্যক্ষ হিসেবে পদায়ন করে মঙ্গলবার আদেশ জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কর্ম-সম্পর্ক পরিত্যাগ এবং অবসরোত্তর ছুটি বাতিলের শর্তে আগামী ২৫ জানুয়ারি বা যোগদানের তারিখ থেকে এই নিয়োগ কার্যকর হবে।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে উপসচিব মো. অলিউর রহমান স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, বিসিএস (স্বাস্থ্য) ক্যাডারের কর্মকর্তা ডা. আবুল বাসার মো. মাকসুদুল আলমকে সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮ এর ৪৯ ধারা অনুযায়ী তার অবসরোত্তর ছুটি স্থগিতের শর্তে আগামী ২৫ জানুয়ারি ২০২০ অথবা যোগদানের তারিখ থেকে পরবর্তী ২ (দুই) বছর মেয়াদে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ও অধ্যাপক, এ্যানেসথেসিওলজি পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ প্রদান করা হলো।

এক নজরে ডা. এবিএম মাকসুদুল আলম

এবিএম মাকসুদুল আলম মির্জাপুর ক্যাডেট কলেজ থেকে এসএসসি ও এইচএসসি কৃতিত্বের সঙ্গে উত্তীর্ণ হন। এবিএম মাকসুদুল আলম চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ান্স অ্যান্ড সার্জনস (এফসিপিএস)-এর অ্যানেস্থেশিয়া, ইনটেনসিভ কেয়ার অ্যান্ড পেইন মেডিসিনের একজন সম্মানিত ফেলো।

ডা. এবিএম মাকসুদুল আলম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অ্যানেস্থেসোলজি, একিউট পেইন মেডিসিনে এমডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন। তিনি বাংলাদেশ সোসাইটি অব অ্যানেস্থেশিয়া প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।